যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি অঞ্চলে পর্যটন বিভাগে কর্মরত স্টিভের ইসলাম গ্রহন।

0 11

যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি অঞ্চলে পর্যটন বিভাগে কর্মরত স্টিভ। নিজের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের সঙ্গে সৌদি আরবের আভা এলাকায় ভ্রমণ করেন স্টিভ।ওই সময় তাঁরই পাশে অবস্থান করছিলেন শায়খ সুদাইস। শায়খ সুদাইসের পক্ষ থেকে তাঁর ব্যক্তিগত সহাকারী ও অনুবাদক সাআদ আল মাতরাফি আমেরিকার পর্যটক স্টিভকে কিছু খেজুর ও জমজমের পানি উপহার হিসেবে দেন।আল মাতরাফি বর্ণনা করেন, স্টিভ ইসলাম সম্পর্কে জানতে অনেক বেশি আগ্রহী। তাই ইসলাম ধর্মবিষয়ক নানা বই পাঠ করেন। প্রতিবেশী স্টিভের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে শায়খ সুদাইস কোরআন ও হাদিসের আলোকে প্রতিবেশী সম্পর্কে ইসলামের শিক্ষা তুলে ধরেন। প্রতিবেশীর অধিকার ও ইহুদি নারী প্রতিবেশীর সঙ্গে রাসুল (সা.)-এর মানবিক আচরণের ঘটনা বর্ণনা করেন। প্রতিবেশীর প্রতি সুন্দরতম ব্যবহার হচ্ছে ইসলামি চরিত্রের অন্যতম গুণ। প্রতিবেশী হলো সেসব লোক যারা আপনার বাড়ির আশেপাশে বসবাস করে। যে আপনার সবচেয়ে নিকটবর্তী সে আপনার সুন্দর ব্যবহার এবং অনুগ্রহের সবচেয়ে বেশি হকদার।আল্লাহ তায়ালা বলেন,

(وَبِٱلۡوَٰلِدَيۡنِ إِحۡسَٰنٗا وَبِذِي ٱلۡقُرۡبَىٰ وَٱلۡيَتَٰمَىٰ وَٱلۡمَسَٰكِينِ وَٱلۡجَارِ ذِي ٱلۡقُرۡبَىٰ وَٱلۡجَارِ ٱلۡجُنُبِ وَٱلصَّاحِبِ بِٱلۡجَنۢبِ)
‘আর মাতা-পিতার প্রতি সদ্ব্যবহার করো, নিকটাত্মীয়, এতিম, মিসকিন, নিকটতম প্রতিবেশী ও পার্শ্ববর্তী প্রতিবেশীর প্রতিও।’ [সুরা নিসা, ৪ : ৩৬]

প্রতিবেশী শায়খ সুদাইসের আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়ে ইসলামের পথে চলতে শুরু করেন স্টিভ।স্টিভের ইসলামগ্রহণ সম্পর্কে শায়খ সুদাইস আল্লাহর প্রশংসা করে বলেন, ‘স্টিভ এখন থেকে আমার মুসলিম ভাই। ইসলামের পবিত্রতা ও আল্লাহর একত্ববাদের সুমহান শিক্ষা তাঁর অন্তরে খুবই রেখাপাত করে।’ সৌদিতে ভ্রমণকালে উত্তম প্রতিবেশী সম্পর্কে ইসলামের শিক্ষা ও সৌদি আরবের আতিথেয়তা কাছ থেকে দেখার সুযোগ পান স্টিভ।নিজের ইসলান গ্রহণ নিয়ে স্টিভ বলেন, ‘ইসলামের সুমহান আদর্শ, অনুকম্পা ও অনুগ্রহের শিক্ষা আমাকে ইসলামের প্রতি আগ্রহী করেছে। তা ছাড়া সৌদি আরবের মানুষের সরলতা ও দায়িত্বশীলতায় আমি খুবই মুগ্ধ। এখানে এসে মনে হয়েছে, আমি যেন নিজের পরিবারের সঙ্গে আছি। সবাইকে মনে হয়েছে নিজের ভাইয়ের মতো। অবশ্য ইসলাম গ্রহণের ক্ষেত্রে আল মাতরাফির আচার-ব্যবহার আমার অন্তরে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে।’নিজের ইসলান গ্রহণ নিয়ে স্টিভ বলেন, ‘ইসলামের সুমহান আদর্শ, অনুকম্পা ও অনুগ্রহের শিক্ষা আমাকে ইসলামের প্রতি আগ্রহী করেছে। তা ছাড়া সৌদি আরবের মানুষের সরলতা ও দায়িত্বশীলতায় আমি খুবই মুগ্ধ। এখানে এসে মনে হয়েছে, আমি যেন নিজের পরিবারের সঙ্গে আছি। সবাইকে মনে হয়েছে নিজের ভাইয়ের মতো। অবশ্য ইসলাম গ্রহণের ক্ষেত্রে আল মাতরাফির আচার-ব্যবহার আমার অন্তরে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.