বিভিন্ন দেশের কিছু অদ্ভুত ট্রাফিক আইন-কানুনের কথা।

0 24

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সব বিষয়ে ভিন্নতা থাকলেও ট্রাফিক আইনের ক্ষেত্রে প্রায় মিল দেখা যায়। তারপরও কিছু দেশে এক ধরনের হাস্যকর আইন প্রচলিত রয়েছে। আসুন জেনে নেই বিভিন্ন দেশের কিছু অদ্ভূত আর বিচিত্র আইন-কানুনের কথা।

০১। যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকোতে গাড়ি ধোয়ার পর পুরোনো আন্ডারওয়্যার বা অন্তর্বাস দিয়ে গাড়ি মোছা হলে ট্রাফিক আইন ভাঙা হয়। আপনাকে জরিমানা দিতে হবে। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। তবে গাড়ি মোছার জন্য কেউ নতুন আন্ডারওয়্যার ব্যবহার করলে কোন সমস্যা নাই।

০২। বাংলাদেশে হয়ত তা সম্ভব, কিন্তু জাপানে রাস্তায় বৃষ্টির কাদা পানি থাকলে আপনার গাড়ির চাকা যদি ওই পানি পথচারীর গায়ে ছিটিয়ে দেয়, তবে জরিমানা দিতে হবে আপনাকে।

০৩। গাড়ি পরিষ্কার কি করতে ভারি আলিস্যি আপনার? হতেই পারে। কিন্তু নোংরা গাড়ি নিয়ে রাশিয়ার রাস্তায় বেরোলে জরিমানা দেওয়ার জন্য তৈরি থাকুন। আর তা প্রায় ২,০০০ রুবেল। 

০৪। ফিনল্যান্ডে  বছরের সব সময় রাস্তায় গাড়ির লাইট জ্বালিয়ে রাখতে হবে। ডিসেম্বরের ১ তারিখ থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শীতকালীন টায়ার ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক।  আরো একটি অদ্ভুত আইন হলো যদি  পাহাড়ি এলাকার রাস্তায় হরিণ বা এ জাতীয় বড় কোনো প্রাণীর সঙ্গে আপনার গাড়ির ধাক্কা লাগে, তাহলে অবশ্যই পুলিশকে ফোন করে তা জানাতে হবে।

০৫। গাড়িতে লোকেশন ও গতির বিষয়ে সচেতন করা ডিভাইস থাকলে ফ্রান্সে ড্রাইভারদের লাইসেন্স জব্দ করতে এমনকি গাড়ি আটকে ফেলতে পারে পুলিশ।এ ছাড়া গাড়ি চালানোর সময় ড্রাইভারকে অবশ্যই ব্রেথালাইজার (ড্রাইভার মদ পান করেছে কি না তা জানার যন্ত্র) সঙ্গে রাখতে হয়।

০৬। সাইপ্রাসে যত গরমই থাকুক, যত তৃষ্ণাই লাগুক, আপনার খুব খিদে পেলেও গাড়ি চালানো অবস্থায় পানীয় পান বা খাওয়া দাওয়া করলে জরিমানা দিতে হবে আপনাকে।

০৭। জার্মানির অনেক মহাসড়কেই অনেক গতিতে গাড়ি চালানো যায়। তবে মহাসড়কের মাঝখানে গাড়ির জ্বালানি না থাকলে আপনাকে আটকাবে পুলিশ।

০৮। স্পেনে চশমা চোখে গাড়ি চালানোর সময় আরেক জোড়া চশমা অবশ্যই সঙ্গে রাখতে হয়। পুলিশ আরেক জোড়া চশমা না পেলে জরিমানা করবে আপনাকে।

০৯। ঢাকার রাস্তায় চলাচল করেন, আর বাস ড্রাইভার হেল্পারদের গালাগালি শোনেননি এমন বিরল কেউ কি আছেন? এটা শোনাই স্বাভাবিক আজকাল। ঢাকায় এটার প্রচলন ঘটে বেশি। ম্যারিল্যান্ডে গিয়ে জনসমক্ষে যদি অভিশাপও দিয়েছেন তো বিপদে পড়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডে রয়েছে অদ্ভুত এ নিয়মটি। গাড়ি চালানোর সময় চিত্কার করা, কাউকে অভিসম্পাত করার অভিযোগ পাওয়া গেলে একশত মার্কিন ডলার জরিমানা বা তিন মাস পর্যন্ত কারাবাস জুটতে পারে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.